আন্তর্জাতিক ওপার বাংলা

পশ্চিমবঙ্গে রাষ্ট্রপতি শাসন জারির আর্জি সুপ্রিমকোর্টে

সিনিউজ ডেস্ক

পশ্চিমবঙ্গে রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে আর্জি জানালেন সমাজকর্মী ঘনশ্যাম উপাধ্যায়। পশ্চিমবঙ্গে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে নির্দেশ দিক সুপ্রিম কোর্ট। সর্বোচ্চ আদালতে এমনই আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

আবেদনে বলা হয়েছে, কেন্দ্রকে ৩৫৬ ধারা প্রয়োগের নির্দেশ দেওয়ার পাশাপাশি আদালত যেন একটি বিশেষ তদন্তকারী দল (SIT) গঠন করে। প্রসঙ্গত, বাংলায় ভোট পরাবর্তী হিংসা অব্যাহত। ১৬ জন BJP কর্মী- সমর্থকের মৃত্যু হয়েছে বলেও আদালতকে জানিয়েছেন ঘনশ্যাম।

রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে বার বার সরব হয়েছেন রাজ্যপাল। নারদ কেলেঙ্কারি মামলায় দুই মন্ত্রী-সহ চারজনের গ্রেফতারি ঘিরে তুলকালাম কাণ্ড বাধে কলকাতায়। নিজাম প্যালেসে CBI দফতরের সামনে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি হয়। তৃণমূল কর্মীদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় বাহিনীর রীতিমতো খণ্ডযুদ্ধ বেধে যায়। এই পরিস্থিতিতে রীতিমতো টুইটারে হুঁশিয়ারি দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankhar)। টুইটারে রাজ্যপাল লিখেছেন,’এই নৈরাজ্যের পরিণতি কী হতে পারে, আশা করি আপনারা সেটা বুঝতে পারছেন’।

উল্লেখ্য, নারদ মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে ফিরহাদ হাকিম, মদন মিত্র, সুব্রত মুখোপাধ্যায় ও শোভন চট্টোপাধ্যায়কে। এই ঘটনা ঘিরে উত্তাল বঙ্গ রাজনীতি। গ্রেফতারির প্রতিবাদে নিজাম প্যালেসে অবস্থানে বসেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। এই ঘটনায় যেভাবে তৃণমূল কর্মীরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করছেন, তা নিয়ে রাজ্যপালের এই বার্তা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে পর্যবেক্ষক মহলের একাংশ। টুইট বার্তায় তাহলে কীসের ইঙ্গিত দিলেন রাজ্যপাল? তাহলে কি রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হতে পারে? এমন চর্চাই তুঙ্গে রাজ্য রাজনীতিতে।

বিধানসভা নির্বাচনের আগে থেকেই রাজ্য BJP নেতাদের কেউ কেউ বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি জানিয়েছিলেন। ভোট পরবর্তী হিংসা এবং সম্প্রতি নারদ কাণ্ডে রাজ্যের ২ মন্ত্রী-সহ ৪ জনের গ্রেফতার ও তার পরবর্তী ঘটনাক্রম নিয়ে রাষ্ট্রপতি শাসনের সম্ভাবনা নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছে।

Related Posts